উজানের ঢলে তিস্তা নদীতে পানি বৃদ্ধি, ৫ শতাধিক পরিবার পানি বন্দি হয়ে পরেছে

এস এম আলতাফ হোসাইন সুমন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি:
Published:  2017-07-01 14:30:40

উজানের ঢলে তিস্তা নদীতে পানি বৃদ্ধি, ৫ শতাধিক পরিবার পানি বন্দি হয়ে পরেছে

লালমনিরহাটের তিস্তার পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। শনিবার সকালে হাতীবান্ধার তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে বিপদসীমার ১০ সেন্টিমটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পানি কমতে শুরু করেছে বলে সংশ্লিষ্ট পানি উন্নয়ন বোর্ডে একটি সুত্র জানিয়েছে।

এদিকে উজানের ঢালে হঠাৎ পানি বৃদ্ধি হওয়ায় তিস্তা ব্যারাজে তিন কিলোমিটার ভাটিতে হাতীবান্ধার ধুবনি গ্রামের দুটি অংশে বাঁধ ভেঙে গেছে এছাড়াও জেলার কালীগঞ্জ, আদিতমী উপজেলারও বিস্তির্ণ এলাকাজুড়ে জল মগনো হয়ে পরেছে। ফলে এতে প্রায় ৫ শতাধিক পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে ।

জানা গেছে, উজানের ঢলে শুক্রবার রাতে হঠাৎ করেই তিস্তার পানি বৃদ্ধি হয়ে বিপদসীমার উপরে উঠে। সকাল ৬ টায় তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে তা বিপদ সীমার ১০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হতে থাকে। দুপুর ১২ টার দিকে তা কমে আসলেও চাপ বাড়ে তিস্তা ব্যারাজের ভাটিতে।

এতে করে হাতীবান্ধার ধুবনি ও দক্ষিন ধুবনী এলাকায় বাঁধ ভেঙে দুই শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে। সিংঙ্গীমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন দুলু জানান, ইউনিয়নে দুটি স্থানে বাঁধ ভেঙে ৫ থেকে ৭ শত পরিবার পানিবন্দী হয়েছে।

হাতীবান্ধা উপজেলা ত্রাণ ও প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আহমেদ বলেন, প্রায় দুই শতাধিক পরিবার পানিবন্দী আছে বলে শুনেছি। তাদের জন্য প্রয়োজনীয় ত্রানের বরাদ্দ চেয়ে জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন পাঠানো হয়েছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, উজানের ঢলের কারনে শনিবার সকাল ৬ টার দিকে তিস্তার পানি ডালিয়া পয়েন্টে বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপরে ছিল। কিন্তু দুপুরে তা কমে বিপদসীমার ২ সেন্টিমিটির ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়।

এ বিভাগের আরও খবর

লাইভ ক্রিকেট স্কোর