১০ বছর বয়সেই অলিম্পিকের পদক জয়!

সারাবাংলা খেলাধুলা ডেস্ক :
Published:  2016-08-06 15:34:24

১০ বছর বয়সেই অলিম্পিকের পদক জয়!

গৌরিকা সিং। নেপালের ১৩ বছর বয়সী সাঁতারু অংশ নিচ্ছেন রিও অলিম্পিকে। এবারের আসরের সর্বকনিষ্ঠ প্রতিযোগী তিনি 

গৌরিকা সিংকে নিয়ে রিও অলিম্পিকে বেশ হই চই হচ্ছে। বয়স মাত্র ১৩। নেপালের এই সাঁতারু এবারের অলিম্পিক গেমসের সর্বকনিষ্ঠ অ্যাথলেট।

কেউ কেউ ভাবতে পারেন, অলিম্পিক ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ ক্রীড়াবিদ হয়তো তিনি। কিন্তু এমন একজন আছেন যিনি মাত্র ১০ বছর বয়সেই জিতেছিলেন অলিম্পিকের সোনা!

কে সেই অলিম্পিয়ান? তার কথা জানতে হলে ইতিহাসের একেবারে শুরুতে চলে যেতে হবে। ১৮৯৬ এথেন্স গেমস। আধুনিক অলিম্পিকের প্রথম আসর।

গ্রিক জিমন্যাস্ট দিমিত্রিওস লুন্ড্রাস তখন দশ বছরের। ৯ এপ্রিল যখন দলগত ইভেন্টের ব্রোঞ্জ মেডেল জেতেন তখন তার বয়স ১০ বছর ২১৮ দিন। ১২০ বছরের অলিম্পিক ইতিহাসে তার রেকর্ড ভাংতে পারেননি কেউ।
 
অবশ্য ব্যক্তিগত ইভেন্টে অলিম্পিক পদক জেতা সর্বকনিষ্ঠ পুরুষ অ্যাথলেট হিসেবে আসে নিলস স্কোগলান্ডের নাম। ডেনমার্কের এই ডাইভার ১৪ বছর ১১ দিন বয়সে জিতেছিলেন হাই ডাইভিংয়ের রূপা।

সেটি ১৯২০ গেমসের কথা।

কিন্তু একটি গল্প আপনারও জানা থাকলে ভালো হয়। ১৯০০ প্যারিস অলিম্পিক। নেদারল্যান্ডসের দাঁড়টানা দলে ছিলেন হারমানাস ব্রকমান। কিন্তু সেমিফাইনালে হারের পর তাদের স্ট্র্যাটেজি বদলায়।

ব্রকমানের ওজন ছিল ৬০ কেজি। স্থানীয় ৩৩ কেজি ওজনের একটি শিশুকে নেওয়া হয় তার বদলে। ফ্রান্সকে হারিয়ে ফাইনাল জেতে ফ্রাঙ্কোইস ব্রান্ডট ও রেলোফ ক্লেইনের দল।

ব্রকমান প্রতিযোগিতা না করেই সোনা জেতেন। ওই ছেলেটির নাম ও বয়স জানা যায় না। কেবল একটি ছবি আছে ইতিহাসে। ধারণা করা হয় তার বয়স ৭।

 

লাইভ ক্রিকেট স্কোর